যেভাবে চিরবিদায় জানানো হচ্ছে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে

যেভাবে চিরবিদায় জানানো হচ্ছে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে

ব্যাপক ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ পরিবেশের মধ্য দিয়ে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে চিরবিদায় জানানো হচ্ছে। লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার হলে কয়েকদিন ধরে শায়িত থাকার পর স্থানীয় সময় সোমবার ভোর থেকে প্রয়াত রানিকে চিরবিদায় দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়। বিশ্ব নেতাদের পাশাপাশি ব্রিটিশ রাজপরিবারের সদস্য, দেশটির রাজনৈতিক অভিজাত, সামরিক, বিচার বিভাগ ও দাতব্য সংস্থাগুলোর সদস্যরা এতে অংশ নিচ্ছেন।

রানির কফিন এরইমধ্যে ওয়েস্টমিনস্টার হল থেকে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে সহস্রাধিক মানুষের উপস্থিতিতে ধর্মীয় প্রার্থনার পর মরদেহ নেওয়া হবে উইন্ডসর ক্যাসেলে। এখানে আরেক দফা প্রার্থনা পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। এরপরই পারিবারিকভাবে রানিকে চিরদিনের জন্য সমাহিত করা হবে। শবযাত্রা দেখার জন্য ইতোমধ্যেই উইন্ডসরে হাজার হাজার মানুষ অপেক্ষা করছে।

* স্থানীয় সময় বেলা ১২টার পর ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবে থেকে শোভাযাত্রা সহকারে কফিনটি ওয়েলিংটন আর্চের উদ্দেশে নেওয়া হবে। রাজা এবং রাজপরিবারের সদস্যরা কফিনের পেছনে শোভাযাত্রায় অংশ নেবেন। গাড়িতে করে মরদেহ বহনকারী কফিনটি অনুসরণ করবেন কুইন কনসোর্ট ক্যামেলিয়া, উইলিয়াম, হ্যারি, প্রিন্স এডওয়ার্ডের স্ত্রী কেট, মেগান, সোফি।

* ওয়েলিংটন আর্চ থেকে কফিন উইন্ডসর প্রাসাদে নেওয়া হবে। এ সময় শববাহী গাড়ি যাত্রা শুরু করলে রাজকীয় স্যালুটের পাশাপাশি বাজানো হবে জাতীয় সংগীত।

* গাড়িযোগে উইন্ডসর প্রাসাদে পৌঁছাবেন রাজপরিবারের সদস্যরা।

* সেখান থেকে কফিনটি উইন্ডসরে নিয়ে যাওয়া হবে। উইন্ডসরে শবযাত্রা শুরু হবে স্থানীয় সময় বিকাল ৩টা ১০ মিনিট থেকে। রাজা ও রাজপরিবারের অন্যান্য সদস্যরা এতে অংশ নেবেন বিকাল ৩টা ৪০ মিনিটে।

* তিন মাইল (পাঁচ কিলোমিটার) এলাকাজুড়ে পুরো গমনপথজুড়ে সারিবদ্ধভাবে অবস্থান করবেন সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা।

* বিগ বেন ঘণ্টাধ্বনি বাজবে শবযাত্রার পুরো সময় ধরে। রানির মরদেহ বহনকারী কফিন ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল পার হওয়ার সময় রাজকীয় স্যালুট দেওয়া হবে। বাকিংহাম প্যালেসের সামনে রাজার রক্ষীরা এই স্যালুট দেবেন।

* সেন্ট জর্জ চ্যাপেলের নিচে শবযাত্রা থামবে স্থানীয় সময় বিকাল ৩টা ৫৩ মিনিটে।

* রানিকে চূড়ান্তভাবে শেষ বিদায় জানানো শুরু হবে বিকাল ৪টা থেকে। প্রার্থনা পরিচালনা করবেন রানির বিভিন্ন বাসস্থান সংলগ্ন গির্জাগুলোর যাজকরা। রানির ব্যক্তিগত কর্মীরা এই প্রার্থনায় অংশ নেবেন। এছাড়া রানি যেসব দেশের রাষ্ট্রপ্রধান ছিলেন সেসব দেশের প্রতিনিধিরাও এই ধর্মসভায় অংশগ্রহণ করবেন।

* কফিন থেকে রাজমুকুট, রাজদণ্ড ও রাজকীয় গোলক সরিয়ে নেওয়া হবে। শেষ স্তোত্র পাঠের আগেই এগুলো বেদিতে রাখা হবে।

* পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ষষ্ঠ জর্জ মেমোরিয়াল চ্যাপেলে স্বামী প্রিন্স ফিলিপের সঙ্গে রানিকে চিরদিনের জন্য সমাহিত করা হবে। তার সমাধিতে লেখা থাকবে 'দ্বিতীয় এলিজাবেথ ১৯২৬-২০২২।' সূত্র: বিবিসি।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top